Skip to content

একটা পরিষ্কার 4 ইঞ্চি test tube এ 5-10 ml urine নিয়ে centrifuge এ 2000 rpm গতিতে ৫-৭ মিনিট ঘুরাতে হবে। 

তারপর test tube এর urine টা ফেলে test tube এর নীচের তলানী থেকে ১ ফোঁটা একটা slide এ নিয়ে cover slip দিয়ে microscope এর 10x এবং 40x অবজেকটিভের সাহায্যে RBC, Pus cells, Epithelial cells, crystal বা cast পাওয়া যায় কিনা এবং প্রতি 40x বা high Power field (HPF) এ কি পরিমান পাওয়া যায় তা দেখতে হবে।

RBC (Red blood cells)

লোহিত রক্ত কনিকা বা RBC সাধারণত urine এ থাকে না বা পাওয়া যায় না। 

Kidney- infection বা kidney, ureter বা urinary bladder এ কোন প্রদাহ বা পাথর হলে বা মারাত্মক কোন আঘাতে urine এ RBC পাওয়া যেতে পারে। 

প্রতি high power field এ কি পরিমাণ RBC পাওয়া যায় দেখে report লিখতে হয় । 

যেমন, প্রতি high Power এ ১-২ টা পাওয়া গেলে লিখতে হবে RBC: 1-2 /HPE, 

আর যদি প্রচুর পাওয়া যায়, তাহলে RBC: Plenty লিখতে হবে।

Pus cells (Leucocytes)

Kidney, ureter, urinary bladder, urethra এর প্রদাহরে কারনে urine এ pus cells এর উপস্থিতি পাওয়া যায়। 

সুস্থ মানুষের urine এ ১-২ টা pus cells অনেক সময় বিনা কারণে ও পাওয়া যেতে পারে, 

কিন্তু urine এ বেশী pus cells থাকলে অবশ্যই কোন সমস্যা আছে বুঝতে হবে এবং চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। 

প্রতি high power field এ কি পরিমাণ pus cells আছে  তা গুনে report এ লিখতে হবে। 

যদি প্রতি high power field এ ১-২ টা pus cells পাওয়া যায় তাহলে report এ লিখতে হবে pus cells: 1-2/HPF 

আর যদি প্রচুর pus cells পাওয়া যায় তাহলে pus cells: plenty লিখতে হবে।

Epithelial Cells

সাধারণত urine এ ১-২ টা epithelial cells পাওয়া যেতে পারে। 

High power এ slide দেখে RBC এবং Pus cells এর মত report এ লিখতে হবে। 

যেমন প্রতি high power field এ ১-২ টা epithelial cells পাওয়া গেলে লিখতে হবে Epithelial cells: 1-2/HPF.

Crystal

Urine এ RBC, Pus cells, Epithelial cells ছাড়াও বিভিন্ন আকৃতির স্বচ্ছ দানাদার, দন্ডাকার, বর্গাকার বস্তু পাওয়া যায়, এদের crystal বলা হয়। 

Acidic urine এ যে সব crystal পাওয়া যেতে পারেঃ

i) Calcium oxalate

ii) Uric acid

iii) Amorphous urate 

iv) Tyrosine

v) Cystine

Alkaline urine এ যে সব crystal পাওয়া যেতে পারেঃ

i) Amorphous phosphate

ii) Triple phosphate

iii) Calcium carbonate

iv) Ammonium biurate.



Urinary Casts

Urinary Casts গুলো এক ধরনের Gel এর মত Protein পদার্থ দ্বারা তৈরী হয় যা kidney থেকে আসে । সুস্থ্য মানুষের urine এ কোন Casts থাকে না। বিভিন্ন kidney জনিত রোগের কারনে urine এ Casts পাওয়া যায়। Kidney-র nephron এর distal convoluted tubule এবং collecting ducts এ Casts গুলো সৃষ্টি হয় এবং তা পরবর্তীতে urine এর সাথে চলে আসে। Renal tubules এর epithelial cells দ্বারা epithelial casts তৈরী হয়, Fat droplets দ্বারা Fatty cast তৈরী হয় । Epithelial cells  ও WBC  ভেঙ্গে এসব cells এর Granular particles দিয়ে হয় Granular Casts.

 

Protein দ্বারা তৈর হয় Hyaline Casts এবং urine এ Hyaline Casts এর উপস্থিতি Proteinuria নির্দেশ করে। 

 

Urinary Casts কে 2 ভাগে ভাগ করা হয় । যথা –

  1. Acellular Cast
  2. Cellular Casts

Acellular Cast –

  • Hyaline Cast
  • Granular Cast
  • Waxy Cast
  • Fatty Casts
  • Pigment Casts
  • Crystal Casts

Cellular Cast –

  • Red blood cell casts (RBC দ্বারা তৈরি হয়)
  • White blood cell Casts (WBC দ্বারা তৈরি হয়) 
  • Bacterial Casts (Bacteria দ্বারা তৈরি হয়)
  • Epithelical cell casts (Ep. Cells দ্বারা তৈরি হয়)
Spermatozoa

Urine a spermatozoa সাধারণত থাকে না। আর urine a spermatozoa বা শুক্রকিট থাকলেও এদের উপস্থিতির খুব বেশী গুরুত্ব নেই।



Bacteria

Urine এ সাধারণত bacteria থাকে না। Urine collection এর পর অনেকক্ষণ রেখে দিলে urine এ bacteria পাওয়া যেতে পারে। তাছাড়া সুস্থ মানুষের urine এ যদি ১/২ টা bacteria পাওয়া যায় এবং রোগীর কোন সমস্যা না থাকে তাহলে এসব bacteria-র কোন গুরুত্ব নেই। Microscopic examination বা urine a nitrite test করে bacteria-র উপস্থিতি নির্ণয় করা যায়।

Trichomonus vaginalis

Trichomonus vaginalis এক ধরনের পরজীবি যা urine এ অনেক সময় পাওয়া যায়। 

Trichomonus vaginalis বিশেষ করে মহিলাদের urine এ বেশী পাওয়া যায়। 

Trichomonus vaginalis মহিলাদের শ্বেত প্রদেহ বা leucorrhoea রোগ সৃষ্টি করে।

error: Content is protected !!